রবিবার , ১২ জুন ২০২২ | ১৪ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
  1. অন্যান্য
  2. আন্তর্জাতিক
  3. খেলাধুলা
  4. চিকিৎসা
  5. জবস
  6. বিনোদন
  7. বিশেষ প্রতিবেদন
  8. ভিন্ন আয়োজন
  9. শিক্ষা
  10. সারাদেশ

বিশাল বাজেট বাস্তবায়ন সরকারের জন্য বড় চ্যালেঞ্জ: আইসিএমএবি

প্রতিবেদক
TheDhakaNews
জুন ১২, ২০২২ ৬:৩৮ পূর্বাহ্ণ

করোনা পরবর্তি ও অর্থনৈতিক মন্দার এ সময়ে প্রস্তাবিত বাজেটে দুই লাখ ৪৫ হাজার ৬৪ কোটি টাকার ঘাটতি রয়েছে, যা মোট জিডিপির ৫ দশমিক ৫ শতাংশ। এ বিশাল বাজেট অর্জন সরকারের জন্য অনেক বড় চ্যালেঞ্জ বলে প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে ইনস্টিটিউট অব কস্ট অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট অ্যাকাউন্ট্যান্টস অব বাংলাদেশ (আইসিএমএবি)।

শনিবার (১১ জুন) দুপুরে রাজধানীর ইকোনমিক রিপোর্টার্স ফোরামের কার্যালয়ে বাজেট প্রতিক্রিয়া তুলে ধরেন আইসিএমএবির প্রেসিডেন্ট মামুনুর রশিদ।

এ সময় সংগঠনটি ব্যক্তিশ্রেনির করদাতার সর্বোচ্চ করমুক্ত আয়সীমা ৪ লাখ টাকা এবং মহিলা ও ৬৫ বৎসরের ঊর্ধ্বে করদাতাদের সর্বোচ্চ করমুক্ত সীমা ৫ লাখ টাকা করার প্রস্তাব করে। অ্যাডভাইজরি, কনসালটেন্সি প্রফেশনাল, টেকনিক্যাল ইত্যাদি সার্ভিস ফি থেকে উৎসে আয়কর কর্তনকে চূড়ান্ত কর হিসেবে গন্য করার দাবি জানানো হয়। এছাড়া সিনিয়র নাগরিক যাদের আয়ের উৎস শুধুমাত্র পেনশন ও সঞ্চয়পত্রের সুদ তাদের রিটার্ন দেওয়া থেকে অব্যাহতি দেওয়ার আবেদন জানায় আইসিএমএবি।

প্রতিক্রিয়ায় মামুনুর রশিদ বলেন, খাদ্য ও নিরাপত্তা, চিকিৎসা ও স্বাস্থ্য নিরাপত্তা, জাতীয় দুর্যোগ মোকাবিলা, শিল্পায়ন, ব্যবসা প্রসার ও পুঁজি বাজার উন্নয়ন, পোশাক খাতে বিশেষ সুবিধা দেওয়া, পরিবহন শিল্প ও বিমান পরিবহন শিল্পের জন্য বিশেষ সুবিধাসহ এ খাতে বাজেট বরাদ্দ বাড়ানো প্রয়োজন।

তিনি বলেন, বিদেশি বিনিয়োগ বাড়ানোর জন্য প্রতিযোগি দেশগুলোর সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে করপোরেট ট্যাক্স পুনর্গঠন ও বেসরকারি বিনিয়োাগকারীদের আস্থায় আনতে ধারাবাহিক কর নীতি ও ব্যক্তিগত করদাতাদের করের হার পুনর্গঠন করাও প্রয়োজন, যাতে স্বল্প আয়ের জনগোষ্ঠি স্বস্তি পায়।

এছাড়া এনবিআরের ডিজিটাইজেশন, ট্যাক্স রিফর্ম, মহিলা উদ্যোক্তা ও ডিজিটাল উদ্যোক্তাদের প্রনোদনা, ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পে আরও প্রনোদনা দেওয়া, স্বাস্থ্য প্রনোদনা, স্বাস্থ্য ইন্সুরেন্স, কর্মসংস্থান সৃষ্টি, ভ্যাট ও ট্যাক্সের হার সহজ করা প্রয়োজন বলেও মনে করেন মামুনুর রশিদ।

সর্বশেষ - অন্যান্য